সন্ত্রাসীদের গুলিতে শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় মামলা, আটক ৩

জান্নাতুল ফেরদাউস তাসপিয়া (৪)। ফাইল ফটো।

বিডিপ্রেস এজেন্সি ডেস্ক : নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার হাজিপুর ইউনিয়নে সন্ত্রাসীদের গুলিতে বাবার কোলে থাকা শিশু জান্নাতুল ফেরদাউস তাসপিয়া (৪) নিহতের ঘটনায় ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) দুপুরে নিহত তাসপিয়ার চাচা হুমায়ুন কবির বাদী হয়ে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

এ ঘটনায় তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তবে মামলার গোপনীয়তার স্বার্থে আসামিদের নাম প্রকাশ করেনি পুলিশ।

বেগমগঞ্জ মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহিদুল হক রনি মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত ১০-১২ জনকে আসামি করে নিহত শিশুটির চাচা মামলাটি করেছেন। আমরা তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছি। গুরুত্ব দিয়ে মামলাটি তদন্ত করা হচ্ছে। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে বেগমগঞ্জ উপজেলার হাজিপুর ইউনিয়নে সন্ত্রাসীদের গুলিতে বাবার কোলে থাকা জান্নাতুল ফেরদাউস তাসপিয়া নামে এক শিশু নিহত হয়। এ সময় গুলিবিদ্ধ হয় শিশুটির বাবা সৌদি প্রবাসী মাওলানা আবু জাহের।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পূর্ব হাজিপুর গ্রামের রাশেদ মিয়ার বাড়ির আলম পার্শ্ববর্তী দুর্গাপুর ইউনিয়নের লক্ষ্মীনারায়ণপুর গ্রামের বাদশার কাছে মাটি বিক্রি করেন। কিন্তু বাদশা চুক্তির চেয়ে অতিরিক্ত মাটি কেটে নিতে চাইলে গত দুই দিন ধরে উভয় পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় ঝামেলা হয়।

একপর্যায়ে বুধবার বিকেলে বাদশা তার এলাকার রিমনসহ ৪-৫ জন বহিরাগত সন্ত্রাসীকে ভাড়া করে ঘটনাস্থলে নিয়ে আসে। সন্ত্রাসীরা ঘটনাস্থলে এসেই এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে থাকে।

এ সময় শিশু সন্তানকে কোলে নিয়ে ঘটনাস্থলে থাকা প্রবাসী জাহের ও তার মেয়ে তাসপিয়া গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তাদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। ঢাকা নেওয়ার পথে রাত ৮টার দিকে কুমিল্লায় শিশু তাসপিয়ার মৃত্যু হয়।

বিডিপ্রেস এজেন্সি/নুসহাই

আরও পড়ুন...