‘ভারতে মুসলিমরা সবচেয়ে সুখে আছে’

বিডিপ্রেস এজেন্সি ডেস্ক : বিশ্বে ভারতেই মুসলিমরা সবচেয়ে সুখে আছে বলে দাবি করেছেন ভারতের রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের প্রধান মোহন ভাগবত। হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে ধর্মীয় ভেদাভেদের মাধ্যমে কিছু মানুষ স্বার্থ লাভের রাস্তা খোঁজে বলেও মন্তব্য করেছেন এই নেতা।ভারতীয় গণমাধ্যমকে দেয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে শনিবার (১০ অক্টোবর) এ মন্তব্য করেন তিনি।এ সময় মোহন ভাগবত বলেন, ভারতে মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের অস্তিত্ব বিপন্ন নয়। বরং সারা বিশ্বের মধ্যে ভারতেই মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ সব থেকে সুখে আছে।

ভারতের কট্টর হিন্দুত্ববাদী সংগঠন আরএসএস প্রধান আরো বলেন, মহারানা প্রতাপের সৈন্য দলে অনেক মুসলিম সেনা ছিল। তারা মোগলদের বিরুদ্ধে লড়েছে। এটাই আমাদের ভারতবর্ষ। আমাদের দেশের নাম উচ্চারিত হলে সংহতির কথাই আসে সবার আগে। হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে ভেদাভেদ করে কিছু মানুষ। তাদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য।

মোহন ভাগবত বলেন, ‘আমাদের দেশের সংবিধানে কোথাও লেখা নেই যে এখানে মুসলিমদের কোনো জায়গা নেই। কোথাও বলা নেই যে এদেশে থাকতে হলে হিন্দুদের শ্রেষ্ঠ বলে মেনে নিতে হবে। যখনই দেশের সংস্কৃতির ওপর আক্রমণ হয়েছে এদেশের মানুষ ঝাঁপিয়ে পড়েছে। তা সে হিন্দু হোক বা মুসলমান। এটাই আমাদের দেশ। আপনারা পাকিস্তানে দেখুন। সেখানে সংখ্যালঘু হিন্দুদের একঘরে করে রাখা হয়েছে। কিন্তু ভারতে মুসলিমরা সুখে রয়েছে।’আরএসএস প্রধান এদিন আরও জানান, এদেশে প্রতিটি মানুষের নিজের ধর্ম পালনের অধিকার রয়েছে। তার জন্য কাউকে জবাবদিহি করার কোনো প্রয়োজন নেই।

বিডিপ্রেস এজেন্সি/টিএস

আরও পড়ুন...