বাগেরহাটে ৪৩৩ গৃহহীন পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর

বিডিপ্রেস এজেন্সি,বাগেরহাট : মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাগেরহাট জেলার ৪৩৩ পরিবারকে দেওয়া হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার “ঘর”। ইতোমধ্যে বেশিরভাগ ঘর নির্মান সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার (২৩ জানুয়ারি) মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ‘শেখ হাসিনা’ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করার পরে উপকারভোগীদের মাঝে দলিল ও ঘরের চাবি হস্তান্তর করা হবে। বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে বাগেরহাট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মুজিবর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীণ ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান বিষয়ক প্রেস ব্রিফিংয়ে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক আনম ফয়জুল হক এসব কথা বলেন।

বাগেরহাট স্থানীয় সরকার বিষয়ক উপ-পরিচালক দেব প্রসাদ পাল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব ) মোঃ শাহিনুজ্জামান, বাগেরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মোছাব্বেরুল ইসলাম, সাংবাদিক আজমল হোসেন, আলী আকবর টুটুল, ইয়ামিন আলী বক্তব্য এসময় বক্তব্য রাখেন। প্রেসব্রিফিংয়ে বাগেরহাটে কর্মরত বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মীরা অংশগ্রহন করেন।

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক আনম ফয়জুল হক বলেন, বাগেরহাটের ৯ উপজেলার প্রত্যেকটিতে বরাদ্দ দেওয়া ঘরগুলোকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা খুবই গুরুত্বের সাথে নির্মান করেছেন। ঘর তৈরিতে ব্যবহৃত নির্মান সামগ্রী ও উপকার ভোগী নির্বাচনেও যথেষ্ট সতর্কতা অবলম্বন করা হয়েছে।ইতোমধ্যে নির্বাচিত উপকার ভোগীদের নামে জমির দলিল ও সনদপত্র প্রস্তুত করা হয়েছে। শনিবার (২৩ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করার পরে আমরা উপকারভোগীদের মাঝে দলিল ও ঘরের চাবি হস্তান্তর করব।

আশ্র্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় বাগেরহাট জেলার ৯টি উপজেলায় ৪‘শ ৩৩টি ঘর নির্মান করা হচ্ছে। এর মধ্যে বাগেরহাট সদর উপজেলায় ৫২, কচুয়ায় ৩৬, চিতলমারী ১৭, মোল্লাহাটে ৩৫, ফকিরহাটে ৩০, রামপালে ১০, মোংলায় ৫০, মোরেলগঞ্জে ৬ এবং শরণখোলা উপজেলায় ১‘শ ৯৭টি ঘর নির্মান করা হচ্ছে।এর মাধ্যমে এই পরিবার গুলো গৃহহীন পরিচয় থেকে মুক্তি পাবেন।

বিডিপ্রেস এজেন্সি/আই

আরও পড়ুন...