বগুড়া ধুনটে শিশু হত্যার ঘটনার অনুসন্ধানে মাঠে নেমেছে পুলিশ

বিডিপ্রেস এজেন্সি,ধুনট,বগুড়া : বগুড়ার ধুনটে ৫ বছরের শিশু তাওহীদ সরকার হত্যার দুই দিনে পুলিশ কোন কুল কিনারা করতে পারেনি। শুক্রবার রাতে নিহত তাওহীদের দাদা বাদশা সরকার বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি দিয়ে ধুনট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা দ্রুত সময়ের মধ্যে হত্যার রহস্য উদঘাটন হওয়ার দাবী করে বলেন, হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে শুক্রবার রাতে নিহত শিশুটির মা, সৎ বোন ও চাচাসহ চারজনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। পারিবারিক অশান্তি ও পরকীয়া প্রেম সহ বিভিন্ন বিষয় সামনে নিয়ে মামলার তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। এটি একটি ন্যাক্কার জনক আলোচিত ঘটনা। এ ঘটনার রহস্য উদঘাটন করতে আমার পুলিশ সদস্যরা ব্যাপক তৎপর রয়েছে। দ্রুতই রহস্য উদঘাটন হবে বলে আশাবাদী।

পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, শিশু তাওহিদের বাবা আব্দুল গফুর সরকার জিবিকার তাগিদে প্রায় ৩বছর যাবত মালয়েশিয়ায় আছেন। গফুর সরকারের বাবা মা সাথে তার স্ত্রী দুলালী খাতুন ছেলে সজিব(৮) তাওহিদ (৫) কে নিয়ে এলাঙ্গী ফকির পাড়া গ্রামের বাড়িতেই থাকতেন। শুক্রবার সকালে পরিবারের সবাই কাজের জন্য বাড়ির বাহিরে যায়।

বেলা ১১ টার দিকে তাওহিদের মা দুলালী খাতুন বাড়িতে এসে ঘরের ভেতর শিশু তাওহিদের রক্তাক্ত নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার দেয়। পরে প্রতিবেশী লোকজন এসে তাওহিদকে উদ্ধার করে ধুনট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত রক্ত মাখা একটি বটি উদ্ধার করে ও তাওহিদের লাশ ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ মর্গে প্রেরন করেন।বগুড়া জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান জানান, শিশু হত্যার রহস্য উদঘটনে আমি বগুড়া ডিবি পুলিশের একটি চৌকস টিম নিয়ে অনুসন্ধান অব্যহত রেখেছি।

বিডিপ্রেস এজেন্সি/টিআই

আরও পড়ুন...