প্রধানমন্ত্রীকে ভোট চুরির নির্বাচন বন্ধ করার আহ্বান কাদের মির্জার

বিডিপ্রেস এজেন্সি ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রীকে ভোট চুরির নির্বাচন বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ভাই আব্দুল কাদের মির্জা।মঙ্গলবার বিকেলে, নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে কর্মীসভায় এ আহ্বান জানান তিনি। ক্ষমতাসীন দলের এই মেয়র প্রার্থী বলেন, ভোট চুরির নির্বাচন বন্ধ করতে পারেন একমাত্র শেখ হাসিনাই। এ সময় তিনি অভিযোগ করেন, ভোট বানচাল করতে বসুরহাটে অস্ত্র সরবরাহ করা হচ্ছে। কোন বিশৃঙ্খলা হলে তার দায় ওবায়দুল কাদেরকে নিতে হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী, ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আব্দুল কাদের মির্জা এখন সারাদেশেই পরিচিত। নিজের নির্বাচনি প্রচারে প্রতিদিনই দলের নেতাদের একহাত নিচ্ছেন তিনি। ছাড় পাচ্ছেন না ওবায়দুল কাদেরও।

মঙ্গলবার পৌরসভার দুই নম্বর ওয়ার্ডে নির্বাচনি কর্মীসভায় আবদুল কাদের মির্জা বলেন, ভোট চুরির নির্বাচন করে মেয়র হতে চান না তিনি। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দাবি করেন আলোচিত এই প্রার্থী। তিনি আরও বলেন, এই অবস্থা আর মেনে নেয়া যায় না। আমি মনে করি একমাত্র জননেত্রী শেখ হাসিনাই এই অপরাজনীতি বন্ধ করতে পারে। ভোট চুরির রাজনীতি শেখ হাসিনা ছাড়া আর কারো পক্ষে করা সম্ভব না।

এসময় ওবায়দুল কাদেরের ভাই অভিযোগ করেন, ভোট বানচাল করতে বসুরহাটে অস্ত্র সরবরাহ করা হচ্ছে। নির্বাচনে কোন বিশৃঙ্খলা হলে তার দায় আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদককে নিতে হবে বলেও হুঁশিয়ার করেন তিনি। তিনি বলেন, আমাদের এলাকায় ইতিমধ্যেই নিজাম হাজারী বাহিনী এবং একরামের বাহিনীর অস্ত্র ঢুকে গেছে। আমি একটা কথা বলতে চাই যদি কোন রক্ত ঝরে কোন মানুষ মারা যায়, যদি ভোট নিয়ে কোন ছিনিমিনি খেলা হয় তাহলে এর দায় এলাকার মন্ত্রী এবং এমপি হিসেবে ওবায়দুল কাদেরকেই নিতে হবে।দলের নেতাদের সমালোচনা চালিয়ে গেলেও কদিন ধরেই গণমাধ্যমকর্মীদের এড়িয়ে চলছেন কাদের মির্জা। অনুমতি নেই তার নির্বাচনি কর্মসূচিতে প্রবেশেরও।

বিডিপ্রেস এজেন্সি/টিআই

আরও পড়ুন...