নাক ডাকার কারণে বাবাকে পিটিয়ে মারলো ছেলে

বিডিপ্রেস এজেন্সি ডেস্ক :  ছেলের কাছে  বাবার অপরাধ ঘুমের সময় নাক ডাকে। নাক ডাকা নিয়ে ঝামেলা করে একপর্যায়ে বাবাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে খুন মেরেই ফেলল ছেলে।

এমন নৃশংস ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের পিলভিট জেলার সৌধা গ্রামে। নিহত ওই বাবার নাম রামস্বরূপ। বয়স ৬৫ বছর। পরিবারে তার স্ত্রী ও দুই ছেলে রয়েছে। বড় ছেলে নবিন এবং ছোট ছেলে মুকেশ।

ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত ছেলে। তার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। বাবার দেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) রাতে ছোট ছেলে মুকেশকে নিয়ে এক আত্মীয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন রামস্বরূপের স্ত্রী। বাড়িতে ছিল বড় ছেলে নবিন।

এলাকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন, বাবার সঙ্গে নানা বিষয় নিয়ে মাঝেমধ্যেই ঝামেলা হত নবিনের। ওইদিন রাতে নাক ডাকা নিয়ে রামস্বরূপ ও নবিনের মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হয়। দুইজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে লাঠি নিয়ে বাবার ওপর আক্রমণ করে নবিন। হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে নিজ বাবাকে মারধর করে সে। মার খেয়ে একপর্যায়ে খাট থেকে নিচে পড়ে গিয়ে অজ্ঞান হয়ে যান রামস্বরূপ। এরপর সেখান থেকে পালিয়ে যায় নবিন।

ওই ঘটনার পর ছোট ছেলে মুকেশকে ফোন করে এলাকাবাসী। খবর পেয়ে তড়িঘড়ি বাড়ি ফেরে সে। এরপর গুরুতর আহত রামস্বরূপকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয় পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, পারিবারিক অশান্তির জেরেই এই খুন হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে ধারণা করা হচ্ছে। নাক ডাকা নিয়েই বাবা ও ছেলের মধ্যে ঝামেলা হচ্ছিলো। তখনই রেগে গিয়ে বাবাকে মারতে থাকে ছেলে। তাতেই মৃত্যু হয় ওই বৃদ্ধের।

বিডিপ্রেস এজেন্সি/টিআই

আরও পড়ুন...