দে‌শে ‘হাসিনাতন্ত্র’ চলছে : গয়েশ্বর

বিডিপ্রেস এজেন্সি ডেস্ক : দেশে ‘গণতন্ত্র’ নয়, ‘হাসিনাতন্ত্র’ চলছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।তিনি বলেন, ‘দেশে গণতন্ত্র নয়, হাসিনাতন্ত্র চলছে। হাসিনাতন্ত্রের আদলেই দেশ চলছে। এই আদলে দেশ-বিদেশে সাথে বন্ধুত্ব চলছে। হাসিনাতন্ত্র যদি প্রত্যাহার করতে না পারেন, তাহলে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার হবে না। গণতন্ত্রের সংবিধানে প্রতিস্থাপিত হবে না। যেখানে গণতন্ত্র থাকে না, সেখানে সকল পেশার মানুষ অধিকারহীন হয়।

সোমবার (১৩ নভেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সাংবাদিকদের প্রতীকী অনশনে উপস্থিত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন। কারাবন্দি সাংবাদিকদের মুক্তি ও সাগর-রুনীসহ সব সাংবাদিক হত্যা, নির্যাতনের বিচার দাবিতে এ প্রতীকী অনশন অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন এ কর্মসূচির আয়োজন করেন।সরকারের উদ্দেশ্য করে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, সাংবাদিকদের কোনো ত্রুটি হলে প্রেস কাউন্সিলে অভিযোগ দেওয়া যেতে পারে। থানা পুলিশ করাটা বেআইনী। আসলে সাংবাদিকরা দ্বিধাবিভক্ত হবার কারণেই তাদের উপরে এই নির্যাতনের মাত্রাটা বেড়ে গেছে।

তিনি বলেন, অবিলম্বে প্রবীণ সম্পাদক আবুল আসাদ, সাংবাদিক রুহুল আমিন গাজী ও ফটো সাংবাদিক কাজলকে মুক্তি দিতে হবে। গোটা সাংবাদিক সমাজকে এই দুশাসনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। অন্যথায় একে একে আপনাদের সবাইকেই এই জুলুম-নির্যাতনের শিকার হতে হবে। কেউ আপনাদের পাশে দাঁড়াবেনা। আজ হয়তো কেউ কেউ ক্ষমতাসীনদের সাথে আছেন। কিন্তু এমন একদিন আসবে যখন আপনাদেরও অন্যদিকে যেতে হবে। অতএব এসব বাদ দিয়ে সাংবাদিক নির্যাতনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়ান।

গয়েশ্বর বলেন, সাংবাদিকরা কখনো ক্ষমতার জন্য আন্দোলন করে না। তারা অন্দোলন করে মানুষের অধিকার, তাদের পেশাগত অধিকার আদায়ের জন্য। মৌলিক অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে সরকার পরিবর্তনের জন্য তারা রাজপথে নামে।প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমানের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করার নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, অন্যান্য সম্পাদকদের এই হত্যা মামলার বিরুদ্ধে অবস্থান না নেয়াটা আরো নিন্দনীয় হয়েছে।

বিডিপ্রেস এজেন্সি/টিআই

আরও পড়ুন...