দেশে ফেরার জন্য লেবাননে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিক্ষোভ

ছবি: সংগৃহীত। 

বিডিপ্রেস এজেন্সি ডেস্ক : দেশে ফেরার দাবিতে কয়েক হাজার প্রবাসী লেবাননের রাজধানী বৈরুতের বাংলাদেশ দূতাবাস ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেছেন। তাদের একটাই দাবি, হাতে অর্থ নেই, সরকারি খরচে ফিরতে চান দেশে।

বহুবার আবেদন জানানোর পরও, দূতাবাস প্রবাসীদের পাঠাতে পারছে না দেশে- এমন অভিযোগ তুলে রাস্তায় নেমেছেন তারা। এতে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। দূতাবাসের শ্রম সচিবের আশ্বাসে আন্দোলন স্থগিত করলেও, জানুয়ারির মধ্যে দেশে ফিরতে না পারলে প্রায় ২০ হাজার বাংলাদেশি আরও কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন।

অবৈধ হয়ে পড়া ৩০ থেকে ৪০ হাজার শ্রমিকের মধ্যে দেশে ফিরে আসতে চান অর্ধেকের বেশি। টানা কয়েক মাস কাজ না থাকায় দেশটিতে মানবেতর জীবন যাপন করছেন তারা। দূতাবাস প্রবাসীদের ফেরানোর কাজ করলেও তা অনেক ধীর বলে অভিযোগ বাংলাদেশিদের। আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে দূতাবাসের শ্রম সচিব আবদুল্লাহ আল মামুন আরও জোরালো ভূমিকা রাখার আশ্বাস দেন।

লেবানন বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম সচিব আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, আমরা একটা পক্ষ না। এখানে বাংলাদেশ সরকার আছে, লেবানন সরকার আছে, বাংলাদেশ দূতাবাস আছে, এয়ারলাইন্স আছে।এইসবগুলো পক্ষ নিয়ে আমাদেরকে এটা কো-অর্ডিনেট করতে হয়। আমরা বসে নেই। আমরা কাজ করেই যাচ্ছি।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে দেড় লাখের মতো বাংলাদেশির বাস। রাজনৈতিক অস্থিরতা, কাজের অভাব, উদ্রমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, মুদ্রার মান পড়ে যাওয়া আর ডলার সংকটে বেসামাল সেখানকার অর্থনীতি।

বিডিপ্রেস এজেন্সি/এমএসআই

আরও পড়ুন...