‘দেশে কিছুটা দুর্নীতি আছে’

বিডিপ্রেস এজেন্সি ডেস্ক : আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, দেশে দুর্নীতি কিছুটা আছে। তবে সরকার তা কঠোরভাবে দমন করতে ব্যবস্থা নিচ্ছে। ২০৩০ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশ উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে বলে।

শনিবার (৯ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর সেগুন বাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান-প্রজন্ম ঐক্যজোট আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন মাহবুব-উল আলম হানিফ।

এ সময় তিনি বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনারা কথায় কথায় দুর্নীতির কথা বলেন। দুর্নীতি সারা পৃথিবীতেই কম বেশি আছে। আমাদের এখানেও যে নেই সেটা আমরা বলব না। কিন্তু দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমাদের সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। যার বিরুদ্ধে যখনই অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আপনাদের সময় দুর্নীতিকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিয়েছিলেন। হাওয়া ভবন বানিয়ে আপনাদের নেতা তারেক রহমান কমিশন বাণিজ্য করেছেন। আপনারা দুর্নীতিকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিয়েছেন। নিজেদের অযোগ্যতা ও ব্যর্থতার কারণে জনবিচ্ছিন্ন হয়ে বিএনপি নেতারা সরকারের উন্নয়নের সমালোচনা করছেন। বিএনপি নেতারা পদের লোভে স্বাধীনতা যুদ্ধ নিয়ে মিথ্যাচার করে যাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন হানিফ।

বিএনপি চেয়ার পারসন বেগম খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর হত্যার দিনে কেক কেটে তার উপর প্রতিশোধ নিচ্ছেন।অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য পংকজ দেবনাথ, আওয়ামী লীগ উপকমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জাকির আহাম্মদসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিডিপ্রেস এজেন্সি/আইজেএস

আরও পড়ুন...