জামালপুরে লকডাউনে দোকান খোলার দাবিতে দোকান মালিক-কর্মচারীদের বিক্ষোভ

ছবি: নিজস্ব। 

শওকত জামান,জামালপুর : জামালপুরে লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে শহরের প্রধান সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন মালিক-কর্মচারীরা লকডাউনে বেতন বোনাস দোকান ভাড়া না দিলে খোলে দেওয়ার দাবিতে প্রায় ১ ঘন্টা শহরের তমালতলায় প্রধান সড়ক অবরোধ করে সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেছে দোকান মালিক ও কর্মচারীরা। এতে ওই সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

এছাড়া বকশীগঞ্জ উপজেলাতেও লকডাউন বিরোধী শ্লোগানে বিক্ষোভ করেন ব্যবসায়ীরা। এর আগে গতকাল দুপুরে মেলান্দহ উপজেলাতে লকডাউন অমান্য করে ব্যবসায়ীরা পথে নামলে পুলিশের সাথে ধাওয়া-ধাওয়ির ঘটনা ঘটে।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে শতাধিক দোকানের বিক্ষুব্ধ মালিক ও কর্মচারীরা শহরের তমালতলায় সমাবেত হয়ে সড়ক অবরোধ করেন। ‘কর্মচারী বেতন-বোনাস ও দোকান ভাড়া দিন, নইলে দোকান খুলতে দিন, লেখা ব্যানার নিয়ে এই বিক্ষোভ করেন তারা। এ সময় তারা ‘লকডাউন মানি না, মানব না’ শ্লোগান দেন।

প্রায় ঘন্টাব্যাপী বিক্ষোভের পর জামালপুর চেম্বার অব কমার্সের নেতারা বিষয়টি প্রশাসনের সাথে আলোচনার আশ্বাসে দিলেও সড়কেই অবস্থান করে বিক্ষোভকারীরা। পরে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে পুলিশ ।

জামালপুর চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক ইকরামুল হক নবীন জানান, ঈদকে সামনে রেখে ব্যবসায়ীরা অনেক টাকা লগ্নি করেছেন। এমনিতেই সারা বছর করোনা মহামারীর কারণে ব্যবসায়ে মন্দাভাব ছিল। এখন এভাবে লকডাউন চললে তারা পথে বসবে। তাই ব্যবসায়ীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে নির্দিষ্ট সময়ে দোকান খোলা রাখার দাবিতে এই বিক্ষোভ করেন।প্রশাসনের কাছে আকুতি জানিয়েছেন।

আমরা ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবো।জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম খান জানান, দোকান খোলার দাবি নিয়ে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন ব্যবসায়ীরা। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

বিডিপ্রেস এজেন্সি/জাসিফ আয়মান

আরও পড়ুন...