কাবুলের স্কুলে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, অসংখ্য প্রাণহানি

বিডিপ্রেস এজেন্সি ডেস্ক : আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের স্কুলে পরপর তিনটি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় নিহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। আহত হয়েছেন আরও বহু মানুষ। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) পশ্চিম কাবুলের একটি উচ্চ বিদ্যালয়ে বিস্ফোরণে হতাহতের এই ঘটনা ঘটে।

আফগান নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স। বিস্ফোরণে নিহত বা আহতের সংখ্যা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি বলে জানিয়েছে বার্তাসংস্থাটি।

অন্যদিকে পৃথক এক প্রতিবেদনে ভারতীয় বার্তাসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, পশ্চিম কাবুলের একটি উচ্চ বিদ্যালয়ে দু’টি বিস্ফোরণে ৬ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও কয়েক ডজন মানুষ।

রয়টার্স বলছে, হামলা হওয়া এলাকার পাশেই সংখ্যালঘু শিয়া জনগোষ্ঠী হাজারা সম্প্রদায়ের বহু মানুষ বসবাস করে থাকেন। কাবুলের কমান্ডারের মুখপাত্র খালিদ জাদরান বলেছেন, ‘একটি উচ্চ বিদ্যালয়ে তিনটি বিস্ফোরণ ঘটেছে … আমাদের শিয়া জনগোষ্ঠীর কিছু মানুষ হতাহত হয়েছেন।’

কাবুলের একটি হাসপাতালের নার্সিং বিভাগের প্রধান নাম প্রকাশ না করার শর্তে রয়টার্স’কে বলেছেন, মঙ্গলবারের এই বিস্ফোরণে কমপক্ষে চারজন নিহত হয়েছেন এবং ১৪ জন আহত হয়েছেন। অবশ্য হামলার পর এর দায় তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠীই এখনও স্বীকার করেনি।

এদিকে পৃথক এক প্রতিবেদনে ভারতীয় বার্তাসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, পশ্চিম কাবুলের একটি উচ্চ বিদ্যালয়ে দু’টি বিস্ফোরণে ৬ জন নিহত হয়েছেন। রুশ বার্তাসংস্থা স্পুটনিক নিউজের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, বিস্ফোরণের এই ঘটনায় আরও কয়েক ডজন মানুষ আহত হয়েছেন।

বার্তাসংস্থাটি জানিয়েছে, কাবুলের পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত মুমতাজ স্কুলে প্রথম বিস্ফোরণ ঘটে। এক প্রত্যক্ষদর্শীর মতে, বিস্ফোরণে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। পরে রাজধানী কাবুলের দাশত-ই-বারচি জেলায় আরেকটি স্কুলের কাছে দ্বিতীয় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

ওই সূত্রটি জানিয়েছে, বিস্ফোরণের ঘটনায় ৬ জন নিহত এবং আরও কয়েক ডজন আহত হয়েছেন।’

বিডিপ্রেস এজেন্সি/টিএ

আরও পড়ুন...