করোনা মোকাবিলায় কোহলি-আনুশকার আর্থিক সহায়তা

বিডিপ্রেস এজেন্সি ডেস্ক : করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ক্রমেই বেড়ে উঠছে ভারতে। কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে দেশটি। প্রতিদিনই আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যার নতুন নতুন রেকর্ড গড়ছে দেশটি। এমন পরিস্থিতিতে মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যোগ দিতে সবার সহায়তা চেয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও তার স্ত্রী বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা।

মূলত কঠিন এ পরিস্থিতিতে সংকটের মুখে পড়া চিকিৎসা ব্যবস্থায় সহায়তার জন্য তহবিল গঠনের কাজ হাতে নিয়েছেন কোহলি ও আনুশকা। ৭ কোটি রুপি সংগ্রহের লক্ষ্য তাদের। এরমধ্যেই নিজেরা এ তহবিল দান করেছেন ২ কোটি ভারতীয় রুপি।

সামাজিক মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে এক ভিডিও বার্তায় কোহলি বলেছেন, ‘মহামারির সঙ্গে লড়াই করার মতো পরিস্থিতি ভারতে অত্যন্ত কঠিন হয়ে উঠেছে। আমাদের দেশকে এরকমভাবে কষ্ট ভোগ করতে দেখা আমাদের জন্য সত্যিই কষ্টদায়ক। যারা আমাদের জন্য দিনরাত লড়াই করে আসছে তাদের সকলের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। তাদের উৎসর্গ প্রশংসনীয়।’

আর এ তহবিল গড়তে ভারতীয় অনলাইন ক্রাউডফান্ডিং প্ল্যাটফর্ম কেটো’কে বেছে নিয়েছেন এ দুই তারকা। ভক্ত-সমর্থকদের এগিয়ে আহ্বান জানিয়ে কোহলি আরও বলেন, ‘অনুশকা এবং আমি কেটো’তে একটা অভিযান শুরু করেছি। এর মাধ্যমে আমরা কোভিড-১৯ আক্রান্তদের সাহায্য করতে চাই। এই বিষয়ে আপনাদের সাহায্য পেলে আরও ভালো লাগবে। জীবন বাঁচানোর জন্য কোনো অনুদানই ছোটো নয়।’

সকলের সাহায্য পেলে কাজটা সহজেই করতে পারবেন বলে মনে করেন ভারতীয় অধিনায়ক, ‘এই পার্থক্য গড়ে তুলতে আমরা সবধরনের সাহায্য করতে চাই। তবে এই পরিস্থিতির বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আমরা আপনাদের সাহায্যও চাই। আমি আপনাদের প্রত্যেককে এই লড়াইয়ে অংশগ্রহণ করার আহ্বান জানাচ্ছি। আসুন আমরা সবাই মিলে এই দেশকে সুরক্ষিত এবং শক্তিশালী করে তুলি।’

আগামী সাত দিন কেটোতে চলবে এই তহবিল গঠনের কাজ। প্রাপ্ত অর্থ পাঠানো হবে এসিটি গ্র্যান্টসে, যারা অতিমারির এ সময়ে অক্সিজেন সরবরাহ, চিকিৎসা জনশক্তি, টিকা সচেতনতা ও টেলিমেডিসিন সুবিধা নিয়ে কাজ করছে।

বিডিপ্রেস এজেন্সি/এসকে

আরও পড়ুন...